বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও তালিকা

বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও তালিকা

আপনি কি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর সম্পর্কে জানতে চান? বর্তমানে কোন বিখ্যাত ব্যক্তি বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দায়িত্ব পালন করছেন? পূর্বে কে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের দায়িত্ব পালন করেছেন? এই সকল প্রশ্নের উত্তর আমরা এই অনুচ্ছে জানতে পারবো।

বাংলাদেশ ব্যাংক হচ্ছে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। অন্যান্য সকল আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সম্পন্ন হয়। প্রতিটি দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংককে সরকারের ব্যাংক বলে থাকে। প্রতিটি ব্যাংক পরিচালনা করার জন্য একজন প্রধান নির্বাহী দরকার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক কাকে বলে?

কেন্দ্রীয় ব্যাংক হচ্ছে এমন একটি ব্যাংক যা সকল আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক হিসেবে কাজ করে, মুদ্রানীতি ও ঋণনীতি প্রণয়ন এবং বাস্তবায়ন, এবং দেশীয় আর্থিক বাজারের প্রসার ও উন্নয়ন, দেশের বৈদেশিক রিজার্ভ ব্যবস্থাপনা, মুদ্রা ইস্যু করা, পরিশোধ ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণ ও তত্ত্বাবধান, টাকা পাচার প্রতিরোধ, ঋণের তথ্য সংগ্রহ করা, বৈদেশিক বিনিময় নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন করা এবং আমানত বীমা প্রকল্প পরিচালনা ইত্যাদি সকল প্রকারের কাজ করে থাকে।

বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নাম “বাংলাদেশ ব্যাংক“। প্রতিটি কেন্দ্রীয় ব্যাংককে পরিচালনা করার জন্য একটি প্রধান কার্যনির্বাহী দরকার।

বাংলাদেশ ব্যাংক কি?

বাংলাদেশ ব্যাংক বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নাম। এই ব্যাংক বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধিত্ব করে। যেকোনো দ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক বানিজ্যখাতে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে থাকে। এই ব্যাংককে বাংলাদেশের একমাত্র সরকারী ব্যাংক।

বাংলাদেশের একমাত্র সরকারী ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন ব্যাংকের অভিভাবক হিসেবে কাজ করে থাকে। এই ব্যাংক অন্যান্য সকল ব্যাংকে সরল সুদে ঋণ দিয়ে থাকে।

একটি দেশের যেকোনো ব্যাংক পরিচালনা করার জন্য একজন পরিচালক দরকার। বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক তথা বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক পদের নাম গভর্নর।

বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও তালিকা

বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ১৯৭২ সালের সংবিধান অনুসারে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও তালিকা জানতে হলে, আপনাকে জানতে হবে গভর্নর কাকে বলে?

বাংলাদেশ ব্যাংকের বর্তমান গভর্নর কে?

যখন থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত হয়, তখন থেকে আজ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কার্য নির্বাহের জন্য একজন প্রধান কার্যনির্বাহী থাকে। এই প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে গভর্নর বলে।

একজন গভর্নরের মেয়াদ ৪ বছর হয়ে থাকে। কোনো কারণে বাংলাদেশের সরকার যা চাইলে বৃদ্ধি বা কমাতে পারে। একজন গভর্নর ইচ্ছে করলেই সব কাজ করতে পারেন না। তাকে বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রনালয়ের সাথে একসাথে কাজ করতে হয়।

একজন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ইচ্ছে করলেই নোট বা মুদ্রা ছাপাতে পারেন না। সরকারের প্রয়োজনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক নতুন টাকা বাজারে ছাড়ে এবং পুরাতন নোট ও মুদ্রা বন্ধ করে থাকে।

এই পর্যন্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বমোট মেয়াদ উত্তীর্ণ গভর্নরের সংখ্যা ১১ জন। সর্বমোট ১২ জন গভর্নর তাদের দায়িত্ব শেষ করেছেন।

নিচে বাংলাদেশ ব্যাংকের সকল গভর্নরের তালিকা নিচে পদ গ্রহনের তারখি এবং পদ পরিত্যাগের তালিকা ছক আকারে নিচে উল্লেখ্য করা হলো-

ক্রমিক নংগভর্নরপদ গ্রহণপদ পরিত্যাগ
এ. এন. এম. হামিদুল্লাহ্‌১৮ জানুয়ারি ১৯৭২১৮ নভেম্বর ১৯৭৪
এ. কে. নাজিরউদ্দীন আহমেদ১৯ নভেম্বর ১৯৭৪১৩ জুলাই ১৯৭৬
মোঃ নূরুল ইসলাম১৩ জুলাই ১৯৭৬১২ এপ্রিল ১৯৮৭
শেগুফতা বখ্‌ত চৌধুরী১২ এপ্রিল ১৯৮৭১৯ ডিসেম্বর ১৯৯২
খোরশেদ আলম২০ ডিসেম্বর ১৯৯২২১ নভেম্বর ১৯৯৬
লুৎফর রহমান সরকার২১ নভেম্বর ১৯৯৬২১ নভেম্বর ১৯৯৮
ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন২৪ নভেম্বর ১৯৯৮২২ নভেম্বর ২০০১
ড. ফখরুদ্দীন আহমদ২৯ নভেম্বর ২০০১৩০ এপ্রিল ২০০৫
ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ১ মে ২০০৫৩০ এপ্রিল ২০০৯
১০ড. আতিউর রহমান১ মে ২০০৯১৫ মার্চ ২০১৬
১১ফজলে কবির১৬ মার্চ ২০১৬৩ জুলাই ২০২২
১২আব্দুর রউফ তালুকদার৪ জুলাই ২০২২
বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও তালিকা

বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর কে?

একটি দেশের সকল আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মূল অভিভাবক বাংলাদেশ ব্যাংক। বর্তমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের নাম “আব্দুর রউফ তালুকদার“। তিনি ৪ জুলাই ২০২২ বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর পদ গ্রহণ করছেন।

আব্দুর রউফ তালুকদার কর্মজীবনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তরের উপনিবন্ধক, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব, খাদ্য মন্ত্রণালয় ও তথ্য মন্ত্রণালয়ে সহকারী সচিব, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের যুগ্ম সচিব ও অতিরিক্ত সচিব ছিলেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা কয়টি?

বাংলাদেশ ব্যাংক এর প্রধান কার্যালয়সহ সর্বোমোট ১০টি শাখা রয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই ১০টি শাখার মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এর প্রধান কার্যালয় রাজধানী ঢাকার মতিঝিলে অবস্থিত। শাখা কার্যালয়সমূহ হচ্ছেঃ

  • মতিঝিল
  • সদরঘাট
  • বগুড়া
  • চট্টগ্রাম
  • রাজশাহী
  • বরিশাল
  • খুলনা
  • সিলেট
  • রংপুর
  • ময়মনসিংহ

এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে, যেটি বাংলাদেশ ব্যাংক ট্রেনিং একাডেমি নামে পরিচিত। প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত

শেষকথা

বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নাম আব্দুর রউফ তালুকদার। তিনি ৪ জুলাই ২০২২ সালে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের পদ গ্রহণ করেছেন। একজন গভর্নর দেশের অর্থনীতিকে প্রগতিকে বাড়িয়ে দিতে পারে। আবার প্রগতিকে কমিয়ে দিতেও পারে। তাই বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর এর দায়িত্ব অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমাদের যোগ ও বিশ্বাসযোগ্য গভর্নর দরকার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বর্তমান গভর্নর কে

বাংলাদেশ ব্যাংকের বর্তমান গভর্নর “আব্দুর রউফ তালুকদার“। তিনি ৪ জুলাই ২০২২ বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর পদ গ্রহণ করছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা কয়টি

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বমোট ১০টি শাখা রয়েছে।

Leave a Comment